আওয়ামীলীগ এবার পূর্ণ মেয়াদ ক্ষমতায় থাকতে পারে কি-না তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন আমাদের গুরুজি সিরাজুল ইসলাম ওরফে সেরু পাগলা। গুরুজি বলেছেন যে, আওয়ামীলীগ দেশে উন্নয়নের জোয়ার তুলেছেন হেতু এতদিন ক্ষমতায় টিকে আছে এমন ধারণা যারা করছেন, তারা ভুলের স্বর্গে বসবাস করছেন। আওয়ামীলীগ উন্নয়ন জোয়ারের জন্য ও আওয়ামী নেতাকর্মীদের একতার জন্য ক্ষমতায় টিকে আছে এ কথা সঠিক নয়। আওয়ামীলীগ শুধুমাত্র একজনের সততা ও পুণ্যবলে ক্ষমতায় টিকে আছে। আর যে মানুষটির পুণ্যবলে ও সততার জন্য ক্ষমতায় টিকে আছে সে মানুষটির নাম জননেত্রি শেখ হাসিনা।

ধীরে ধীরে জননেত্রি শেখ হাসিনাকে দলের মধ্যে থাকা কিছু লোভী, দুর্নীতিবাজ ও অসাধু লোক বিপথগামী করার চেষ্টা করেছে ও করছে। একা জননেত্রি শেখ হাসিনা বিচক্ষণতার সহিত সে সকল লোভী, দুর্নীতিবাজ ও অসাধু লোকদেরকে প্রতিহত করে, নির্লোভী থেকে সত্যকে প্রতিষ্ঠিত করার যুদ্ধ করে চলেছেন। দলের লোভী, দুর্নীতিবাজ ও অসাধু লোকেদের সহিত সিদ্ধান্তের যুদ্ধে পূর্বে জননেত্রি শেখ হাসিনা যা-ই করে থাকুক না কেন, বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যায় মিন্নির ন্যায় বিচার পাওয়ার ব্যাপারে যদি তিনি ভুল সিদ্ধান্ত নেন, তাহলে হয়তো এবারের পূর্ণ মেয়াদ তিনি তথা আওয়ামীলীগ  ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না ও দীর্ঘ মেয়াদের জন্য ক্ষমতাহীন হবেন বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।

গুরুজি বলেন, পবিত্র কোরআনে আল্লাহ বলেছেন যে, তিনিই মানুষকে ক্ষমতাশালী করেন ও তিনিই মানুষকে ক্ষমতাহীন করেন। অতএব, অসহায় মিন্নি যদি ন্যায় বিচার হতে বঞ্চিত হয়, আর জননেত্রি শেখ হাসিনা যদি তাকে ন্যায় বিচার পেতে সহায়তা না করেন, তাহলে আল্লাহ তাঁর প্রতি বিরাগভাজন হবেন ও তিনি ক্ষমতা হারা হবেন। তাই, এবারের পূর্ণ মেয়াদ ক্ষমতায় থাকতে চাইলে জননেত্রি শেখ হাসিনা যেন, মিন্নির সুবিচার প্রাপ্তির পথ প্রশ্বস্ত করে।

সেই সাথে গুরুজি এও বলেছেন যে, মিন্নি দোষী না নির্দোষ সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে আদালত, এ বিষয়ে আমি কথা বলতে চাই না। তবে, বরগুনার পুলিশ সুপার, তদন্ত কর্মকর্তা ও শম্ভু- সুনামদের কর্মকাণ্ডে এটাই প্রতীয়মান হচ্ছে যে, হয়তো বা তারা কাউকে বাঁচানোর জন্য, অথবা নিজেদের অপকর্ম হতে বাঁচতে মিন্নিকে ফাঁসানোর মিশন নিয়ে কাজ করছে।

পবিত্র কোরআন বলেছে- যে জাতি নিজের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটায় না আল্লাহ সে জাতির ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটায় না। এই আয়াতের ব্যাখ্যায় গুরুজি বলেছেন, মানুষের অবস্থার ভালোমন্দের জন্য মানুষের নিজ কর্মকাণ্ডই দায়ী। আর বরগুনার পুলিশ সুপার, তদন্ত কর্মকর্তা ও শম্ভু- সুনামরা তাদের কৃত কর্মকাণ্ডে তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন প্রায় করে ফেলেছেন। এখন শুধু তাদের ভাগ্যের পরিবর্তনটা  আমাদের দেখার পালা। আর বরগুনার পুলিশ সুপার, তদন্ত কর্মকর্তা ও শম্ভু- সুনামদের মত জননেত্রি শেখ হাসিনাও একই পথে হাঁটে, তাহলে হয়তো বা তাঁর ভাগ্যও এবার পরিবর্তন সাধিত হবে।

অতএব সাধু সাবধান!

 

(39)

2 Responses

  • শুক্রধর

    আওয়ামিলীগ নিঃসন্দেহে পূর্ণ মেয়াদ তো ক্ষমতায় থাকবেই উপরন্তু আরো 3 বার ক্ষমতায় আসবেন |

  • মাসুম মিয়া

    উত্তান পথন আদি প্রাকৃতিক নিয়ম-

    কোনটা স্বাভাবিক কোনটা অস্বাভাবিক

Leave a Reply