سُوْرَةْ

সূরাত

পাতা (১১)

প্রচলিত কোরআনে মোট সূরাত সংখ্যা ১১৪টি। সূরাত শব্দের বাংলা অর্থ প্রতিচ্ছবি। সম্মানিত শিষ্য আসুন জেনে নিই প্রচলিত কোরআনে উল্লিখিত সূরাত বা প্রতিচ্ছবি বলতে কি বুঝাতে চেয়েছে, এবং সে সকল প্রতিচ্ছবি মূলতঃ কার প্রতিচ্ছবি ও কি কারণে প্রচলিত কোরআনের সূরাত বা প্রতিচ্ছবি সংখ্যা ১১৪টি হল।

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম বাক্যটি লিখতে যে উনিশটি অক্ষর ব্যবহার হয়েছে সেই উনিশটি অক্ষর দ্বারা, বা শুক্রাণুর ১৯টি উপাদান দ্বারা গঠিত জীবদেহের ১৯টি অঙ্গ, এবং সে অঙ্গে প্রবাহিত রক্তের ১৯টি উপাদানকে বুঝানো হয়েছে। শুক্রাণুতে থাকা উনিশটি উপাদানের মৌল উপাদান হলো রক্ত কণিকা। শুক্রাণু হতে প্রাপ্ত জীবদেহের প্রতিটি রক্ত কণিকার মধ্যে ছয় প্রকারের ক্রিয়া সম্পাদন ক্ষমতা ধারণ করে। সে সূত্রে জীবদেহে থাকা রক্ত ১৯*৬=১১৪টি ক্রিয়া সম্পাদনকারী ক্ষমতা ধারণ করে। আর সেদিক বিবেচনা করেই প্রচলিত কোরআনের সূরাত সংখ্যা ১১৪টি করা হয়েছে।

প্রকাশ থাকে যে, রক্তে প্রধানত চারটি উপাদান রয়েছে। তা হলো- লোহিত কণিকার নর ও নারী স্বত্বা বা উপাদান ও শ্বেত কণিকার নর ও নারী স্বত্বা বা উপাদান। প্রকাশ থাকে যে, শ্বেত ও লোহিত কণিকার নর ও নারী স্বত্বার জন্য চারটি ভাণ্ড বা ডিস্ক রয়েছে। উক্ত চারটি ভাণ্ড বা ডিস্ককে চার কিতাব বলা হয়েছে। চার কিতাব হলো- তাওরাত, যবুর, ইঞ্জিল ও ফোরকান। এই চার কিতাবের চারটি ভাণ্ড বা ডিস্ক যে মহাভাণ্ড হার্ড ডিস্কে রয়েছে, সেই মহাভাণ্ড বা হার্ড ডিস্কের নাম কোরআন বা জীবদেহের মধ্যে প্রবাহিত বা পঠিত হওয়া স্বত্বা বা উপাদান। আর প্রতিটি কিতাব বা  ভাণ্ড বা ডিস্কে ১৯টি করে ফোল্ডার রয়েছে, এবং প্রতিটি ফোল্ডারে ছয়টি করে ডকুমেন্ট পাতা আছে। সে সূত্রে জীবদেহে থাকা রক্তে মূলতঃ ১৯*৬*৪=৪৫৬টি ক্রিয়া সম্পাদন ক্ষমতা রয়েছে। একজন সুস্থ জীবের অধিকারী হতে হলে, রক্তের কোন উপাদান কতটুকু থাকা উচিৎ, সে মতোই থাকতে হবে। এর ব্যতিক্রম হলে জীব অসুস্থ হয়ে যাবে।

জীবের দেহে থাকা রক্তের প্রত্যেক উপাদানের পরিমানের উপর নির্ভর করে জীব কি চরিত্রের অধিকারী হবে। সে সূত্রে জীবদেহে থাকা রক্তের উপাদানের পরিমানের উপরে যেমন জীবের চরিত্র কেমন হবে তা নির্ভর করে, ঠিক তেমনি জীবের আচরণ দেখেই বুঝা যাবে যে, তাঁর দেহে থাকা রক্তের উপাদানের কোনটি কি পরিমাণ আছে। তাই, জীবদেহে থাকা রক্তের উপাদানের প্রতিচ্ছবি হলো জীবের ক্রিয়া সমূহ। সে সূত্রে জীবকে মোট ৪৫৬টি ভাগে ভাগ করা হয়েছে এবং প্রচলিত কোরআনের ১১৪টি সূরাত এর মাধ্যমে তার পরিচয় প্রকাশ করেছে।

সার কথা, জীব তাঁর জীবদ্দশায় যাহা কিছু ক্রিয়া সম্পাদন করেছে, তাঁর প্রতিটি বিষয় পুংখ্যানুপুংখ্য

পাতা (১২)

ভাবে প্রতিটি জীবের মধ্যে থাকা কোরআন বা মহাভাণ্ড বা হার্ডডিস্কের রক্ত কণিকার ৪৫৬টি অংশে বা ডকুমেন্ট পাতায় সংরক্ষিত হয়ে আছে। এবং সে তাঁর জীবদ্দশায় কি কি ক্রিয়া সম্পাদন করবে তাহাও সংরক্ষিত আছে। তাই প্রতিটি জীবেরই কোরআনের জ্ঞান জানা আবশ্যক।

(45) বার পঠিত

0 Comments

Leave a Reply